পৃষ্ঠাসমূহ

তারিখ

শুক্রবার, ২৩ মার্চ, ২০১২

আসছে উইন্ডোজ-৮

শীর্ষ সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট করপোরেশন এবার নিয়ে আসছে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ। যা আগামী অক্টোবর বাজারে আসবে। উইন্ডোজ-৮ নামের এ সংস্করণের নানা সুবিধা নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে আলোচনা। উইন্ডোজ-৮-এর পরীক্ষামূলক সংস্করণও প্রকাশ করা হয়েছে। 
এবার শুধু কম্পিউটারেই নয়, নতুন এই উইন্ডোজ চলবে ট্যাবলেট ও ল্যাপটপ কম্পিউটারেও। 
নানা ধরনের বৈশিষ্ট্যের মধ্যে উইন্ডোজ-৮-এ থাকছে বিদ্যুৎসাশ্রয়ী সুবিধা। মাত্র ৮ সেকেন্ডে চালু হবে এ অপারেটিং সিস্টেমটি (ওএস)! রয়েছে দুটি আলাদা ইন্টারফেস, যার মধ্যে একটি সাধারণ কম্পিউটার ইন্টারফেস এবং অন্যটি হচ্ছে ট্যাবলেট কম্পিউটারে ব্যবহারের জন্য আলাদা ইন্টারফেস। টাচ ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস সমর্থন করা এই ওএসে এআরএম প্রসেসর সমর্থন করে এমন এসব যন্ত্র সংযোজন করা হয়েছে। পাশাপাশি এটি ইনটেল ও এএমডির এক্স৮৬ মাইক্রোপ্রসেসরকেও সমর্থন করবে। এবারই প্রথম এই সংস্করণটির মাধ্যমে অ্যাপস্টোর চালু করেছে মাইক্রোসফট। 

থাকছে নানা চমক
নানা ধরনের চমক লাগানো সংস্করণটির বিষয়ে মাইক্রোসফট জানায়, উইন্ডোজ ৯৫-এর পর উন্নত নানা সুবিধা যুক্ত করার দিক দিয়ে উইন্ডোজ-৮কেই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ক্লাউড কম্পিউটিংভিত্তিক এই ওএসে অ্যাপ্লিকেশন তৈরির জন্য নানা প্রোগ্রাম থাকায় ইতিমধ্যে প্রোগ্রামারদের বেশ বাহবা কুড়িয়েছে মাইক্রোসফট। হাইপার-ভি ভার্চুয়ালাইজেশন সুবিধা থাকায়
উইন্ডোজ-৭ বা তার আগের সংস্করণের জন্য তৈরি অ্যাপ্লিকেশনগুলোও এখানে কাজ করবে খুব সহজে। থাকছে অ্যাপ্লিকেশন স্টোর, যেখান থেকে ব্যবহারকারীরা নানা অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। নতুন উল্লেখযোগ্য বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে ইউজার ইন্টারফেস, স্পর্শকাতর সুবিধা, অ্যাপস্টোর, স্কাইড, রাইভ ইত্যাদি। মেট্রো ইন্টারফেসের এই ওএসে রয়েছে পার্সোনালাইজড লেআউট, যাতে স্বচ্ছ ছবি এবং অ্যানিমেশন ব্যবহার করা হয়েছে। দ্রুত চালু হওয়ার জন্য সব ধরনের ব্যবহারকারী অ্যাপ্লিকেশন স্টার্টআপ স্ক্রিনের সামনেই দেখা যাবে। থাকছে দুটি স্পর্শকাতর সুবিধার কি-বোর্ড। টাইপের গতি বাড়াতে এবং নিখুঁত করতে কি-বোর্ড দুটিতে নানা ধরনের বৈশিষ্ট্যের মধ্যে রয়েছে শব্দের সাজেশন। অর্থাৎ যে শব্দ লেখা হবে, তার পাশে থাকবে এর সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ অন্য শব্দের সাজেশনও। ক্লাউড কম্পিউটিংয়ের স্কাই ড্রাইভ সুবিধার মাধ্যমে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতেই যেকোনো ছবি, ফাইল কিংবা ডকুমেন্টস অ্যাকসেস সুবিধা পাওয়া যাবে। সবকিছুর পরও থাকছে দারুণ নিরাপত্তাসুবিধা। মাইক্রোসফট জানিয়েছে, অন্য যেকোনো সংস্করণের চেয়ে উইন্ডোজ-৮ ওএসে নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে ভাইরাস বা বাগ (সমস্যা) থেকে ফাইল বা সেটিংস রক্ষায় উইন্ডোজ-৮ কার্যকর হবে বলেই আশা মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষের। বাজারে এসে আবার নিজেদের সেরাটার জানান দিতে বেশ সচেষ্ট মাইক্রোসফট এবার আগে থেকেই উইন্ডোজ-৮-এর ডেভেলপার প্রিভিউ সংস্করণটি প্রকাশ করেছে। যার মাধ্যমে এর নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে পারছেন ডেভেলপাররা। তবে সংস্করণটি শুধু কম্পিউটার, ট্যাবলেট আর ল্যাপটপেই সীমাবদ্ধ থাকছে। এটি স্মার্টফোনে আপাতত ব্যবহার করা যাবে না বলে জানিয়েছে মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ। তবে সবকিছুর পরও বর্তমানে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শীর্ষে থাকা অ্যাপলের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নানাভাবে টিকে থাকার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে মাইক্রোসফট। এবার উইন্ডোজ-৮ দিয়েই সে কাজটি হবে বলে আশা মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষের।

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আপনার মূল্যবান মতামত প্রদান করুন