পৃষ্ঠাসমূহ

তারিখ

রবিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০১২

গ্রামীনফোন দিচ্ছে ৪৫ মেগা বাইট ইন্টারনেট একদম ফ্রী





চলুন উপভোগ করি ৪৫এম বি ফ্রি ইন্টারনেট ।গ্রামীণ ফোন থেকে মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন "Click" এবং সেন্ড করুন 9999 নম্বরে ।ফিরতি SMS এ আপনি পাবেন 45MB Free internet.
একাউন্ট চেক করতে *566*10# ডায়াল করুন ।
বিস্তারিতঃ
অফার: ক্যাম্পেইন চলাকালীন সময়ে একজন গ্রাহক ৪৫ এমবি ডাটা ৩০ দিনের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও সহজে ব্রাউজ করতে পাবেন ফ্রি অপেরা মিনি এবং স্যোসাল নেটওয়ার্কের জন্য ফ্রি ফেসবুক অ্যাপ্লিকেশন।
যাদের জন্য অফার প্রযোজ্য: এই অফারটি সকল গ্রামীণফোন প্রিপেইডএবং পোস্টপেইড গ্রাহকগণ (বিজনেস সলিউশন ও জিপি কানেন্ট ব্যতীত) যারা ডিসেম্বর মাসে মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করেনিএবং যাদের সংযোগ ৩১ ডিসেম্বর, ২০১১ অথবা তার আগে নেওয়া তাদের জন্য প্রযোজ্য।
মেয়াদ: ২৫ জানুয়ারি ২০১২থেকে ২৫ ফেব্রম্নয়ারি ২০১২
বিস্তারিত:
*.
অফারটি পেতে গ্রাহককে Click লিখে ৯৯৯৯ নম্বরেপাঠাতে হবে। কোনো এসএমএস চার্জ প্রযোজ্যনয়
*.
এসএমএস পাঠানোর ৭২ ঘণ্টার মধ্যে গ্রাহকেরমোবাইলে ৪৫এমবি ইন্টারনেট ডাটা পাঠিয়েদেয়া হবে। এই ফ্রি ডাটাব্যবহারের মেয়াদ ৩০ দিন। ৪৫ এমবি ফ্রি ইন্টারনেট পাবার পর গ্রাহকের মোবাইলে কনফার্মেশন এসএমএস চলেআসবে
*.
অফারটি শুধুমাত্র ইন্টারনেট সম্বলিত হ্যান্ডসেটে ব্যবহার করা যাবে
*.
অবশিষ্ট ব্যালেন্স জানতে View লিখে পাঠিয়ে দিন ৫০০০ নম্বরে অথবা ডায়াল করুন *৫০০*৬০#
*.
৩০ দিনের মধ্যে ৪৫ এমবিব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে পরবর্তী ব্যবহারে০.০১ টাকা প্রতি ১০ কিলোবাইট হিসেবে চার্জপ্রযোজ্য হবে (১৫% ভ্যাট প্রযোজ্য)। ৩০ দিনে ৪৫ এমবি ব্যালেন্স শেষ না হলে ৩০ দিন মেয়াদ অতিক্রমের পর ইন্টারনেট ডি-অ্যাক্টিভেট হয়ে যাবে
*.
এই অফার গ্রামীণফোন গ্রাহকগণ মেয়াদ চলাকালীন সময়ে একবার উপভোগ করতে পারবেন
*.
ক্যাম্পেইন ২৫ জানুয়ারি ২০১২ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১২ পর্যন্ত চলবে
*.
ইন্টারনেট হ্যান্ডসেট সেটিংস পেতে ডায়াল করুন *৫০০*৫০#
*.
৪৫ এমবি ফ্রি ইন্টারনেট সংক্রান্ত তথ্য জানতে Click লিখে পাঠিয়ে দিন ৯৯৯৯ নম্বরে
*.
গ্রামীণফোন ইন্টারনেট প্যাকেজসমূহের ব্যাপারে জানতে ডায়াল করুন *১১১*৬*১# অথবা আপনার মোবাইল থেকে ভিজিট করুন

বৃহস্পতিবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০১২

সংসদে সময়ের অপচয়

জাতীয় সংসদে বিরোধী দলের অনুপস্থিতি এখন আর একমাত্র বড় সমস্যা হিসেবে গণ্য হচ্ছে না। সংসদকে অকার্যকর করতে সরকারদলীয় সাংসদেরাও পিছিয়ে নেই। পরিস্থিতির এতটাই অবনতি ঘটেছে যে সংসদের চিফ হুইপ আব্দুস শহীদ প্রথম আলোকে বলেছেন, কোরাম-সংকট রেওয়াজে পরিণত হয়েছে। এর আগে সংসদে মন্ত্রিসভার সদস্যদের ব্যাপক অনুপস্থিতির কারণে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছিল স্পিকারের আসন থেকে।
একসময় কোরাম-সংকট কালেভদ্রে দেখা যেত। বিশ্বের কোনো কার্যকর সংসদ মেনে নেবে না যে এমন সংকট কখনো রেওয়াজে পরিণত হতে পারে।
বর্তমান সংসদে এখন পর্যন্ত কোরাম-সংকটের কারণে অপচয়ের পরিমাণ ৩২ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাওয়ার ঘটনা চরম হতাশাজনক। এ থেকে প্রমাণিত হয় যে জাতীয় সংসদ সব রাজনৈতিক কার্যক্রমের কেন্দ্রবিন্দু হওয়া থেকে অনেক দূরে আছে। এমনকি সরকারি কার্যক্রমের যে রুটিন দিকগুলো রয়েছে, সেগুলোতেও সরকারদলীয় সদস্যরা আকর্ষণ বোধ করছেন না। এটা দুঃখজনক।

বৃহস্পতিবার, ১২ জানুয়ারী, ২০১২

কম্পিউটার চলবে চোখের ইশারায়!


দিন দিন এগিয়ে যাচ্ছে প্রযুক্তি, আর তার সঙ্গে সঙ্গে পাওয়া যাচ্ছে চমক লাগানো বিভিন্ন সামগ্রী। সম্প্রতি মাইক্রোসফট তাদের উইন্ডোজ ৮ অপারেটিং সিস্টেমের জন্য নিয়ে এল নতুন এক প্রযুক্তি। প্রযুক্তিটির নাম ‘উইন্ডোজ ৮ গেজ ইন্টারফেস’। 
সুইডেনের ‘টোবি’ নামক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান উইন্ডোজ ৮-এর জন্য এক অদ্ভুত যন্ত্র তৈরি করেছে। এ যন্ত্রের মাধ্যমে চোখের ইশারার মাধ্যমে সহজেই কম্পিউটার চালানো যাবে। আশ্চর্য হলেও সত্যি, এ পদ্ধতিতে কারসর নড়াচড়া করানোর জন্য মাউসের পরিবর্তে চোখের ইশারাই যথেষ্ট। কোনো লিংক বা স্ক্রিনের কোথাও ক্লিক করতে হবে না। কারসরের ওপর চোখ রেখে সেদিকে চোখের ইশারা করলেই তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালু হয়ে যাবে। জানা গেছে, গেজ ইন্টারফেস পদ্ধতিটি উইন্ডোজ ৮-নির্ভর ট্যাবলেট এবং স্মার্টফোনের জন্য তৈরি করা হচ্ছে। 
উল্লেখ্য, কোম্পানিটি এর আগে চোখের ইশারায় নিয়ন্ত্রণ করা যায় এমন গেমও তৈরি করেছিল। আশার কথা হচ্ছে, মাইক্রোসফট শুধু বর্তমানে উদ্ভাবিত চোখের ইশারায় কম্পিউটার চলার প্রযুক্তিই নয়, পরবর্তী অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে তারা আরও নতুন চমক উপহার দেবে বলেও খবর শোনা যাচ্ছে। আর সেই নতুন প্রযুক্তিতে তারা ছবি, পাসওয়ার্ড ও অঙ্গভঙ্গির সাহায্যে উইন্ডোজ চালাতেও সক্ষম হবে।

সুত্রঃ প্রথম আলো, ১২ জানুয়ারী, ২০১২ 

বৃহস্পতিবার, ৫ জানুয়ারী, ২০১২

এ কেমন সাংসদ?

তিনি একজন সাংসদ। তিনি মনিপুর উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজের পরিচালনা পর্ষদের একজন সভাপতি। তিনি বিক্ষুব্ধ অভিভাবকদের বলতে পারেন, ‘এদের গুলি করো।’ তিনি টেলিভিশন চ্যানেলের ক্যামেরায় আঘাত করতে পারেন, কবজি মোচড়াতে পারেন একজন নারী সাংবাদিকের। তিনিই বলতে পারেন, ‘করুক রিপোর্ট...আমার কী করতে পারে, দেখি।’ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি-প্রক্রিয়ায় দুর্নীতির প্রতিবাদ অভিভাবকেরা করেছেন, সাংবাদিকেরা সেই সত্য যুগপৎ জনগণ ও সরকারের সামনে তুলেও ধরেছেন। আমরা এখন দেখতে চাইব, মিরপুর-২ আসনের সাংসদ কামাল মজুমদারের এই বেআইনি কাজের বিরুদ্ধে সরকার কী ব্যবস্থা নেয়। এ রকম ঘৃণ্য আচরণের প্রতিকার না করা হলে, আইনের শাসন এবং গণতন্ত্রের প্রতি মানুষ আস্থা হারাবে। 

সাংসদের আরেক পরিচয় আইনপ্রণেতা। যিনি আইন প্রণয়ন করেন, তিনি গুলি করার হুমকি দেন কীভাবে? কথার তোড়ে তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন, যে যুবকদের সঙ্গে নিয়ে তিনি ঘোরেন তাঁদের সঙ্গে পিস্তল-বন্দুক থাকে। নইলে কীভাবে তিনি গুলি করার হুমকি দেন? তিনি এবং তাঁর সঙ্গে থাকা লোকজন যেভাবে সন্ত্রাসী কায়দায় সাংবাদিকদের হেনস্তা ও শারীরিক আঘাত করেছেন, তাতে মনে হয় তিনি

সোমবার, ২ জানুয়ারী, ২০১২

সফলভাবে ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল ইরান

ইরান সফলভাবে মাঝারিপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। গতকাল রোববার নৌবাহিনীর সামরিক মহড়া চলাকালে হরমুজ প্রণালির কাছে ওই পরীক্ষা চালানো হয়। সংবাদ সংস্থা আইআরএনও এ কথা জানিয়েছে।

ওই প্রণালিতে গত ২৪ ডিসেম্বর থেকে নৌবাহিনীর সামরিক মহড়া শুরু হয়।

এদিকে ইরানের ওপর নতুন করে অবরোধ আরোপের লক্ষ্যে গত শনিবার ৬৬ হাজার ২০০ কোটি ডলারের প্রতিরক্ষা বিলে স্বাক্ষর করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এ পদক্ষেপের ফলে ইরান পারস্য উপসাগরে চলা সামরিক ক্ষমতা প্রদর্শনের মহড়া আরও জোরদার করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
নৌবাহিনীর কর্মকর্তা মাহমুদ মৌসাভির উদ্ধৃতি দিয়ে আইআরএনএ জানায়, রাডার ফাঁকি দিতে মাঝারিপাল্লার ওই ক্ষেপণাস্ত্রটিতে আধুনিক প্রযুক্তি সংযোজন করা হয়েছে। তিনি বলেন, ইরান এই প্রথম নিজেদের তৈরি করা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা

রবিবার, ১ জানুয়ারী, ২০১২