পৃষ্ঠাসমূহ

তারিখ

বুধবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১১

ওয়েস্টার্ন ছবির দুর্বৃত্তরা কি বাংলাদেশে হানা দিয়েছে?

হলিউডে এ যাবত যত ছায়াছবি তৈরি হয়েছে তার একটা উল্লেখযোগ্য অংশ ‘ওয়েস্টার্ন‘ নামে শ্রেণীভুক্ত। এসব ছবির তাত্পর্য বুঝতে হলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাস সম্পর্কে কিছুটা ধারণা থাকা দরকার। কলম্বাস আমেরিকা আবিষ্কার করেছিলেন—এ কথাটা যে আদৌ সত্য ছিল না সেটা বর্তমানকালে স্বীকার করা হয়। ক্রিস্টোফার কলম্বাস যখন অতলান্তিক পার হয়ে ওপারে পৌঁছান তখন উত্তর আর দক্ষিণ আমেরিকার সব দেশেই মানুষ ছিল, তাদের সমাজ ছিল, সভ্যতা ছিল। প্রচুর সোনা-দানা ইত্যাদি নতুন মহাদেশ থেকে এনে কলম্বাস স্পেনের রাজকোষ সমৃদ্ধ করেছিলেন এবং তারপর থেকে স্পেন নতুন মহাদেশে বিশাল সাম্রাজ্য বিস্তার করেছিল। সেজন্য সেসব দেশের আদিবাসীদের অসভ্য, বর্বর বলে দুর্নাম দেয়ার প্রয়োজন ছিল, নইলে খোদ স্পেনে ‘সভ্যতা বিস্তার ও খ্রিস্টান ধর্ম প্রচারের’ নামে সাম্রাজ্য বিস্তারের যৌক্তিকতা দেখানো কঠিন হতো। 

বর্তমান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে বিশাল এলাকাজুড়ে বিস্তৃত, সেখানেও বহু জাতি ও উপজাতির মানুষের বসতি ছিল। তাদের ধর্মীয় অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে বলে ১০২ জন ব্রিটন ১৬২০ সালের ৬ নভেম্বর মে ফ্লাওয়ার নামক জাহাজে চড়ে দক্ষিণ ইংল্যান্ডের প্লিম্যাথ থেকে উত্তর আমেরিকায় পাড়ি দেয়। তারা পূর্ব উপকূলে বসতি স্থাপন করে। পরবর্তী কিছুকাল আরও বহু ইউরোপীয় উত্তর আমেরিকার পূর্ব উপকূলীয় এলাকায় গিয়ে বসতি স্থাপন করে। আদিবাসী আমেরিকানরা

প্রিয় ডিজিটাল চোর...

জাপানের ওই অধ্যাপকের হয়ে আমরা একটু ব্যাপারটা কল্পনা করি।
তিনি বাংলা ভাষাপ্রেমিক।
বাংলা শিখেছেন কষ্ট করে। বাংলা সাহিত্য, বাঙালি সংস্কৃতি নিয়ে তাঁর অপার আগ্রহ।
লালন নিয়ে তিনি গবেষণা করছেন।
গরগর করে বাংলা বলতে পারেন, বাংলা পড়তে পারেন।
সেই বাংলা ও বাঙালিপ্রেমিক জাপানি অধ্যাপক পড়ান জাপানের হিরোশিমা বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখানে তাঁর কাছে আমন্ত্রণ এসে পৌঁছাল বাংলাদেশ থেকে। বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ প্রাচ্যের অক্সফোর্ড ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটা সম্মেলন হবে—বঙ্গবিদ্যা সম্মেলন। তিনি নিশ্চয়ই খুবই আনন্দিত হয়েছিলেন এই আমন্ত্রণ পেয়ে। তাঁর স্বপ্নের দেশ বাংলাদেশ। তাঁর স্বপ্নের মানুষেরা থাকে ওই দেশে। তারা তাঁর আগ্রহের ভাষা বাংলায় কথা বলে। এই সেই বাংলা, যে বাংলায় লালন জন্মেছিলেন। এই সেই বাংলা, যেই বাংলার পথে পথে এখনো লালনের মতো বাউলেরা একতারা হাতে গান গেয়ে বেড়ান। তিনি অবশ্যই বাংলাদেশে যাবেন।

রবিবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১১

প্রত্যাখ্যান করলেই সমস্যার সমাধান হবে ''ঘুষ-দুর্নীতিতে শীর্ষে পুলিশ''

দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশের মানুষকে সবচেয়ে বেশি ঘুষ দিতে হয় বলে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআই) যে জরিপ প্রতিবেদন দিয়েছে, তাতে সরকারের নীতিনির্ধারকদের কেউ কেউ গোসসা করতে পারেন; কিন্তু এটাই বাস্তব। জরিপের বিষয় ছিল ‘ডেইলি লাইফস অ্যান্ড করাপশন: পাবলিক অপিনিয়ন ইন সাউথ এশিয়া’।

 জরিপে অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশিদের ৬৬ শতাংশ বলেছেন, সরকারি সেবা পেতে তাঁদের ঘুষ দিতে হয়। ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলঙ্কায় এই হার যথাক্রমে ৫৪, ৫০, ৩২ ও ২৩ শতাংশ। বাংলাদেশের সেবাপ্রার্থীদের মধ্যে ৭৫ শতাংশ বলেছেন, পুলিশকে তাঁদের ঘুষ দিতে হয়। এরপর দ্বিতীয় অবস্থানে আছে বিচার বিভাগ। ঘুষ প্রদানকারীদের মধ্যে ৬৬ শতাংশ নিয়েই শীর্ষে আছে বাংলাদেশ। এরপর আছে ভারত (৫৪ শতাংশ) ও পাকিস্তান (৫০ শতাংশ)। জরিপকারীদের মধ্যে ৬২ শতাংশ মনে করেন

শনিবার, ২৪ ডিসেম্বর, ২০১১

ফেসবুকে এসেছে "টাইমলাইন"

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুক তাদের ব্যবহারকারীদের জন্য ‘টাইমলাইন’ নামের একটি নতুন ফিচার সংযুক্ত করেছে। ‘লাইক’ বাটনের পর এই টাইমলাইনকেই ফেসবুকের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, এর ফলে সামাজিক যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুনত্ব আসবে।

টাইমলাইন মূলত একজন ফেসবুক ব্যবহারকারীর বিভিন্ন সময়ের গল্প বলবে। ছবি, স্ট্যাটাস ও অন্যান্য আপলোডিং টাইমলাইনে ফুটিয়ে তুলবে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিত্ব ও দর্শন। একজন মানুষের জীবনের বিভিন্ন সময়ে যে পরিবর্তন দৃশ্যমান—সেটাও টাইমলাইনের মাধ্যমে তুলে ধরা সম্ভব হবে। মোদ্দা কথা, টাইমলাইন একজন ব্যবহারকারীর বিভিন্ন সময়ের জীবনচিত্র অপরজনের কাছে তুলে ধরবে। তবে, ব্যবহারকারী তাঁর জীবনের যে ব্যাপারগুলো একটা সময় ফেসবুকে তুলেছিলেন, কিন্তু তা আর এখন দৃশ্যমান করতে চান না—সেগুলোও টাইমলাইন থেকে সরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

টাইমলাইনে কয়েকটি নতুন অ্যাপ্লিকেশনও সংযুক্ত করা হয়েছে। যেমন, ‘নেটফ্লিক্স’-এর মাধ্যমে আপনি সাম্প্রতিক সময়ে যেসব সিনেমা দেখেছেন, সেগুলোর তালিকা তুলে ধরা যাবে। এ ছাড়া রানকিপারের মাধ্যমে রাখা যাবে জিপিএস তথ্য। ফেসবুক টাইমলাইন মোবাইলের মাধ্যমেও ব্যবহার করা যাবে। এটি সম্প্রতি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনে সংযুক্ত হয়েছে। খুব তাড়াতাড়িই আইফোনের আইওএস অপারেটিং সিস্টেমে এটি চলে আসবে।

এ মুহূর্তে যদি আপনি আপনার প্রোফাইলে ফেসবুক টাইমলাইন চালু করতে চান, তাহলে সাইনআপ পেজে গিয়ে ‘গেট টাইমলাইন’ বাটনে ক্লিক করুন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনামূলক তথ্যও সেখানে পেয়ে যাবেন। ওয়েবসাইট

বৃহস্পতিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১১

টেস্টেও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব


আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে অলরাউন্ডারদের তালিকার শীর্ষস্থানটা দখল করেছিলেন আগেই। এবার টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের স্বীকৃতিটাও পেয়ে গেলেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।
মিরপুর টেস্টে সেঞ্চুরি আর সাত উইকেট নিয়েও পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের হার এড়াতে পারেননি সাকিব। কিন্তু দুর্দান্ত এই পারফরম্যান্সের পুরস্কার তিনি পেয়ে গেলেন হাতে-হাতেই। আজ বৃহস্পতিবার আইসিসির সর্বশেষ টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার হিসেবে স্বীকৃতি মিলেছে সাকিবের।
প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে ১৪৪ রান ও পাকিস্তানের দুই ইনিংস মিলিয়ে ৭ উইকেট দখল করেন সাকিব। এরই সুবাদে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে টেস্ট অলরাউন্ডারদের তালিকার শীর্ষস্থান দখল করলেন সাবেক এই অধিনায়ক। অবশ্য টেস্টে অলরাউন্ডারদের তালিকায় সাকিবের নাম ওপরের দিকেই ছিল। মিরপুর টেস্টের পারফরম্যান্স তাঁকে এগিয়ে দেয় আরও চার ধাপ অর্থাত্ শীর্ষস্থানে।

সূত্রঃ প্রথম আলো, ২২ ডিসেম্বর, ২০১১

বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১১

ডাউনলোড করে নিন Advanced System Care Pro 5 (Exclusive)

আসসালামু ওয়ালাইকুম। আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করব খুব কাজের একটা সফটওয়্যার যার নাম Advanced System Care 5 pro. এটি খুবই কাজের একটা সফটওয়্যার যা আপনার PC কে রাখবে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন এবং আপনার PC-র গতিকে দেবে কয়েক গুন বাড়িয়ে। এই সফটওয়্যারটির সম্পর্কে বিস্তারিত বলার কিছুই নেই কারন আপনারা সবাই এই সফটওয়্যারটির ব্যপারে অবগত। তাহলে আর কথা নয়, এখনই ডাউনলোড করে নিন মিডিয়াফায়ার লিংক থেকে। সিরিয়াল কী দেয়া আছে। প্র ভার্সন অ্যাক্টিভ করার সময় ইন্টারনেট কানেকশন বন্ধ করে নেবেন। তা না হলে অনলাইন চেকআপে ধরা খেয়ে যাবেন। 



সবাই ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। ভাল লাগলে কমেন্ট করবেন। 

মঙ্গলবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০১১

ইরান ড্রোন বানাবে—আশঙ্কা মার্কিনদের


যুক্তরাষ্ট্রের চালকবিহীন একটি বিমান (ড্রোন) ইরানের কবজায় চলে যাওয়ার পর নানামুখী শঙ্কায় আছেন মার্কিন সামরিক বিশেষজ্ঞরা। ইরানও ড্রোন তৈরি করতে পারে—এমন আশঙ্কা করছেন তাঁরা। ইতিমধ্যে ইরান ঘোষণা দিয়েছে, আটক করা ড্রোনটি থেকে সব তথ্য উদ্ধারের চূড়ান্ত পর্যায়ে আছে তারা। ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের এই খবরে চরম উদ্বেগ প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন ড্রোন দখলে নিতে পারার ঘটনাকে নিজেদের বিজয় হিসেবে দেখছে ইরান। প্রযুক্তি বা গোয়েন্দাগিরির প্রতিযোগিতায় এখন যুক্তরাষ্ট্রকেই পাল্টা টেক্কা দিতে চাইছে তারা। ইরানের পার্লামেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা ও বৈদেশিক নীতিবিষয়ক কমিটির আইনপ্রণেতা পারভিজ সরোরি বলেছেন, ড্রোনের সব তথ্য উদ্ধারের পর ইরানের বিরুদ্ধে ‘আক্রমণের’ অভিযোগ এনে তাঁরা আইনি ব্যবস্থা নেবেন। সরোরি ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন, ইরানের এ ধরনের ড্রোন তৈরির ক্ষমতা রয়েছে। তবে

সোমবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১১

হাসি না পেলে জরিমানা কইরেন!! ১০০% গ্যারান্টি পর্ব- ২



আসসালামু ওয়ালাইকুম। প্রিয় ভাই ও বোনের সবাই কে জানাই আমার প্রাণ ঢালা শুভেচ্ছা। গত পোষ্টে আপনাদের সাথে শেয়ার করেছিলাম মিরাক্কেলের সেরা বাংলাদেশী পারফর্মার আবু হেনা রনির সেরা ৫ টি পর্ব শেয়ার করেছিলাম।


আজ আপনাদের সাথে ২য় পর্ব শেয়ার করব। 


আপনারা অনেকে হয়ত মিরাক্কেলের নাম শুনেছেন কেউবা মিরাক্কেল নিয়মিত দেখেন। যারা নিয়মিত দেখেন তারা জানেন আবু হেনা রনির সাথে আরও একজন সেরা ভারতীয় পারফর্মার হল উত্তর ২৪ পরগনার অপূর্ব রায়। আজ তার সেরা ৫ টি পর্ব আপনাদের সাথে শেয়ার করব। কথা এখনও একটাই, না হেসে যাবেন কোথায়!! হাঁসি না পেলে বলবেন। ব্যর্থ হলে মেগা বাইট ফেরত। 










ক্যামন লাগল জানাবেন। ভিডিও ডাউনলোড থেকে শুরু করে আপলোড করে টিউন লিখতে অনেক কষ্ট হয়। চাওয়া শুধু একটাই কমেন্টস। কোন ব্লগারের জন্য অন্তত এতটুকু করতে কার্পণ্য করবেন না। 

সবাই ভাল থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ। 

অনিশ্চয়তা বাড়বে, বাস্তবায়ন হবে বিলম্বিত- ''পিপিপিতে পদ্মা সেতু!''

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শনিবার গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে বহুল আলোচিত পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রসঙ্গে নতুন কথা বলেছেন। এত দিন জানা ছিল, এই সেতু নির্মাণে অর্থায়নের একটি বড় অংশ আসবে বিশ্বব্যাংক থেকে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী এখন বলছেন, সেতুটি নির্মাণ করা হবে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারির (পিপিপি) ভিত্তিতে। সে জন্য ১০-২০ বছরও যদি সময় লাগে, কোনো অসুবিধা নেই। প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় ঘোষণা: পদ্মা সেতু হবেই।

অবশ্যই পদ্মা সেতু নির্মাণ করা দরকার এবং তা ১০-২০ বছর ধরে নয়, যত তাড়াতাড়ি পারা যায়। কেননা, এই সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানী ঢাকা ও ঢাকার মধ্য দিয়ে সারা দেশের সঙ্গে সংযোগ সৃষ্টি করবে; বিপুলসংখ্যক মানুষ অনেক বছর ধরে এই সেতুর প্রতীক্ষায় রয়েছে। কতগুলো বাস্তব কারণে সেতুটি নিয়ে কিছু অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হয়েছে। প্রথমত, বিশ্বজুড়ে যে অর্থনৈতিক মন্দা চলছে, তার পরিপ্রেক্ষিতে বিশেষজ্ঞদের এই আশঙ্কা বাস্তবিক যে পদ্মা সেতুতে বেসরকারি খাতের বিনিয়োগ আকর্ষণ করা কঠিন হবে। আর যে কারণে পদ্মা সেতুর অর্থায়নে বিশ্বব্যাংকের আপত্তি উঠেছে, তা বাংলাদেশের

রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১১

নতুন রূপে আসছে জিমেইল

নতুন বৈশিষ্ট্য নিয়ে আসছে জিমেইল। এখন থেকে নতুনভাবে ব্যবহার করা যাবে জিমেইল। সম্প্রতি সবচেয়ে বড় সার্চ ইঞ্জিন গুগল ঘোষণা দিয়েছে, জিমেইল ও সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট গুগল প্লাসে ব্যবহারকারীদের আগ্রহ আরও বাড়াতে এই নতুন বৈশিষ্ট্য যোগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
জিমেইলের অফিশিয়াল ব্লগে বলা হয়েছে, জিমেইল আর গুগল প্লাসের মধ্যে যোগসূত্র বাড়াতেই গুগল এই নতুন বৈশিষ্ট্যগুলো নিয়ে আসছে।
নতুন বৈশিষ্ট্যগুলো যোগ হলে গুগল প্লাস ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্টের সার্কেলে তার জিমেইলের ফিল্টার, কনটাক্ট অ্যাড্রেস সবকিছু স্বয়ংক্রিয়ভাবে যোগ হয়ে যাবে। 
এ ছাড়া যখন কোনো ব্যবহারকারী জিমেইলে তার ই-মেইল খুলবে, তখন তার গুগল প্লাসের বন্ধুদের গুগল প্লাসে শেয়ার করা পোস্টগুলো জিমেইলে দেখতে পারবে। জিমেইলে হাতের ডান দিকে ওই পোস্টগুলো দেখা যাবে। আর সরাসরি জিমেইল থেকেও কাউকে তার গুগল প্লাসের সার্কেলে সরাসরি যোগ করা যাবে। এর জন্য আলাদাভাবে গুগল প্লাসে যেতে হবে না। ঠিক একইভাবে কেউ যদি গুগল প্লাস খোলে, তাহলে গুগল প্লাস দিয়েই তার জিমেইলে রাখা ফোন নম্বর, ই-মেইল ঠিকানা দেখতে যেমন পাবে তেমনি আপডেটও করতে পারবে।

এ ছাড়া গুগল প্লাসে ছবি শেয়ার অপশনও যুক্ত হচ্ছে। এর মাধ্যমে এক ক্লিকেই গুগল প্লাসে ছবি শেয়ার করা যাবে। আর এই ছবি গুগল প্লাস ফটোসে আপলোড করতে হবে। —টাইমস অব ইন্ডিয়া

১০ লাখ শেয়ার কিনবেন সালমান

বেক্সিমকো ও বেক্সিমকো ফার্মার অন্যতম উদ্যোক্তা-পরিচালক সালমান এফ রহমান কোম্পানি দুটির মোট ১০ লাখ শেয়ার কেনার ঘোষণা দিয়েছেন। আজ রোববার ডিএসইর ওয়েবসাইটে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।
সেখানে বলা হয়, সালমান এফ রহমান বেক্সিমকোর পাঁচ লাখ ও বেক্সিমকো ফার্মার পাঁচ লাখ করে মোট ১০ লাখ শেয়ার বিদ্যমান বাজারমূল্যে পরবর্তী ৩০ কর্মদিবসে স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে কিনতে চান।

প্রসঙ্গত, গত ১৫ নভেম্বর এসইসির পক্ষ থেকে কোম্পানির উদ্যোক্তা-পরিচালকদের সম্মিলিতভাবে কমপক্ষে নিজ কোম্পানির ৩০ শতাংশ এবং ব্যক্তিগতভাবে দুই শতাংশ শেয়ার কেনার ব্যাপারে বাধ্যবাধকতা আরোপ করে ঘোষণা দেওয়ার পর এই প্রথম শেয়ার কেনার ঘোষণা দিলেন সালমান।

সূত্রঃ প্রথম আলো, ১১ ডিসেম্বর, ২০১১

নির্ধারিত সময়েই ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণের সিদ্ধান্ত

প্রত্যাশিত সময়ের মধ্যেই পুঁজিবাজারে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের চিহ্নিত করে তাদের জন্য সহায়ক ও সমাধানযোগ্য ক্ষতিপূরণের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে ব্রোকারেজ হাউজগুলোকে সহযোগিতার জন্য আহ্বান জানিয়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীর স্বার্থে গঠিত বিশেষ স্কিম কমিটি। বিশেষ স্কিম কমিটির প্রধান ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. ফায়েকুজ্জামান বলেন, বেঁধে দেওয়া দুই মাস সময়ের মধ্যেই স্বল্প পুঁজি ও মার্জিন ঋণ গ্রহণ করে যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন, সেই ধরনের বিনিয়োগকারীদের চিহ্নিত করে তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে একটি গ্রহণযোগ্য সুপারিশ নির্ধারণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিটি। বিশেষ স্কিম কমিটির প্রধান ফায়েকুজ্জামান আরও বলেন, প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে প্রণোদনার পূর্ণাঙ্গ

শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১১

টক অব দ্য উইক : এরশাদের ভণ্ডামি

ভণ্ডামির ক্ষেত্রে এরশাদের জুড়ি নেই। 
৯ বছরের স্বৈরশাসনের সময় জনগণ তার একের পর এক ভণ্ডামি দেখেছে। বন্দুকের নলের মুখে ক্ষমতা নিয়েই এরশাদ সাইকেল চালিয়ে অফিস করেছেন কয়েকদিন। একদিন জনসভায় হঠাত্ ঘোষণা করেন স্বপ্নে তিনি দেখেছেন তার সন্তান হবে। দেখা গেল এক সপ্তাহের মধ্যেই রওশন এরশাদের একটি ছেলে হয়েছে হাসপাতালে। অবশ্য এ রহস্যের কূলকিনারা এখনও হয়নি। তার নারী কাহিনী তো তখন ছিল মুখে মুখে। প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী পটুয়া কামরুল হাসান তাকে বিশ্ববেহায়া হিসেবে আখ্যায়িত করে বিখ্যাত একটি কার্টুনও এঁকেছিলেন।
ক্ষমতার পর দুর্নীতির জন্য এরশাদ জেল খেটেছেন। আওয়ামী লীগের সঙ্গে তার সখ্য সেই ক্ষমতা নেয়ার সময় থেকেই। এখনও আওয়ামী লীগের ক্ষমতার ভাগিদার তিনি। কিন্তু হাওয়া দেখে মাঝেমাঝেই তিনি উল্টো সুরে কথা বলেন।
এরশাদের সঙ্গে ভারতেরও রয়েছে মধুর সম্পর্ক। সেনাবাহিনীতে থাকার সময় এরশাদ ভারতের দেরাদুন থেকে ট্রেনিং নিয়েছেন। দেরাদুন থেকে যারা ট্রেনিং নেয়,

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংঘর্ষ নিয়ে রিপোর্ট : পাত্তা দেননি ‘রুই-কাতলা’রা, উদ্দেশ্যেও গলদ

তত্ত্বাবধায়ক নামের অবৈধ সরকারের সময় ২০০৭ সালের ২০ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে সেনাবাহিনীর সঙ্গে ছাত্রদের সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তে গঠিত সংসদীয় উপকমিটি তার রিপোর্ট তৈরি করেছে। বহুদিন ধরে ঢাকঢোল পিটিয়ে আসার পর ৮ ডিসেম্বর উপকমিটির আহ্বায়ক রাশেদ খান মেনন জানিয়েছেন, প্রায় এক হাজার পৃষ্ঠার রিপোর্টটি ২১ ডিসেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির কাছে জমা দেয়া হবে। ওই কমিটি জাতীয় সংসদের আগামী অধিবেশনে রিপোর্টটি উপস্থাপন করবে। চোটপাট দেখিয়ে মিস্টার মেনন বলেছেন, তারা কোনো ‘চুনোপুঁটি’কে ধরেননি, যারা দায়িত্বে ছিলেন তাদেরকেই আইনের আওতায় এনে শাস্তি দেয়ার সুপারিশ করেছেন। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে এবং সিন্ডিকেটের অনুমতি ছাড়া ক্যাম্পাসে যাতে সেনা ক্যাম্প স্থাপন না করা যায় সে জন্য ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করেছে উপকমিটি। রিপোর্টে ১১টি পর্যবেক্ষণ এবং ১৩ সুপারিশ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১১

তবুও আবুল হোসেন!

কাদম্বিনী মরিয়া প্রমাণ করিয়াছিল সে মরে নাই’।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও সৈয়দ আবুল হোসেনকে যোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে সরিয়ে প্রকারান্তরে স্বীকার করে নিলেন, তাঁর বিরুদ্ধে এত দিন যেসব দুর্নীতি, অযোগ্যতা ও অনিয়মের অভিযোগ এসেছিল তার সবটা মিথ্যে নয়। 

সোমবার মন্ত্রিসভার দপ্তর পুনর্বিন্যাসে দেখা গেল, যোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে সৈয়দ আবুল হোসেন বিতাড়িত হলেও তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেয়েছেন। যোগাযোগ প্রযুক্তি আছে, কিন্তু পদ্মা সেতু নেই। নতুন যোগাযোগমন্ত্রী হয়েছেন ওবায়দুল কাদের, রেলমন্ত্রী হয়েছেন সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত। 
প্রথমেই যে প্রশ্নটি ওঠে তা হলো, একজন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে যখন গুরুতর অভিযোগ উত্থাপিত হয় এবং সেই অভিযোগ যখন দুর্নীতি দমন কমিশনের তদন্তাধীন থাকে, তখন তাঁকে মন্ত্রী পদে রাখা কতটা সমীচীন? যে ব্যক্তির কারণে পদ্মা সেতুর মতো অতীব গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প আটকে গেল, দেশের ও সরকারের ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুণ্ন হলো, সেই ব্যক্তিকে কেন মন্ত্রিসভায় রাখা হবে? এর মাধ্যমে অন্য মন্ত্রীরা কী বার্তা পাবেন? তাঁরাও মনে করবেন, দায়িত্ব পালনে যতই অযোগ্য ও অদক্ষ হোন না কেন, মন্ত্রিত্ব যাবে না। বড়জোর মন্ত্রণালয় বদল হবে।

বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১১

হাসি না পেলে জরিমানা কইরেন!! ১০০% গ্যারান্টি

আসসালামু ওয়ালাইকুম। প্রিয় ভাই ও বোনের সবাই কে জানাই আমার প্রাণ ঢালা শুভেচ্ছা। আজ আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি একটি নন টেকি টিউন নিয়ে। টেকনোলজী ভিত্তিক টিউন তো সব সময় হয়। তাই মাঝে মাঝে নন টেকি টিউন হলে ভালই লাগে।


আপনারা অনেকে হয়ত মিরাক্কেলের নাম শুনেছেন কেউবা মিরাক্কেল নিয়মিত দেখেন।  বর্তমানে মিরাক্কেলের সেরা দুই পারফর্মার আছেন। বাংলাদেশের নাটোর জেলার আবু হেনা রনি বর্তমানে সেরাদের তালিকায় আছে। তারই সেরা পাঁচটি পারফর্মেন্স আপনাদের সাথে শেয়ার করছি। হাসতে হাসতে আপনাদের দম বন্ধ হয়ে যেতে পারে। ভাল লাগবেই। মন খারাপ, একবার শুনেই দেখুন। মন ভাল না হলে আমাকে জরিমানা কইরেন।


আপনাদের জন্য আজ কয়েকটি ভিডিও লিঙ্ক শেয়ার করলাম। এখানে মোট ৫টি ভিডিও আছে। একটা শুনলে সব গুলো শুনতে ইচ্ছে করবে।
ক্যামন লাগলো মন্তব্য করে জানাবেন। সবাই ভাল থাকবেন। আল্লাহ হাফেজ।

অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কারবালার চেতনা

হিজরি সালের মর্যাদাপূর্ণ মহররম মাসের ১০ তারিখ পবিত্র আশুরা ঐতিহাসিক ঘটনাবহুল ও ব্যাপক তাৎপর্যময় দিবস। প্রাচীনকাল থেকে যুগে যুগে আশুরা দিবসে বহু গুরুত্বপূর্ণ স্মৃতিবহ ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। আল্লাহ তাআলা আসমান-জমিন সৃষ্টির কাজ এই দিনেই সম্পন্ন করেন। হজরত আদম (আ.) খলিফা হিসেবে পৃথিবীতে আগমন করেন এবং তাঁর তওবা কবুল হয়। হজরত নূহ (আ.)-এর কিশতি মহাপ্লাবনের কবল থেকে রক্ষা পায়। হজরত দাউদ (আ.)-এর তওবা কবুল হয়। হজরত মূসা (আ.) ফেরাউনের কবল থেকে মুক্তি পান এবং তারা সদলবলে নীলনদে নিমজ্জিত হয়। হজরত ইবরাহিম (আ.) নমরুদের আগুন থেকে নাজাত লাভ করেন। হজরত ইউনুস (আ.) মাছের পেট

রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১১

চন্দ্র অভিযান ও আপনাদের মতামত

আসসালামু ওয়ালাইকুম। আজ আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি বিতর্কিত চন্দ্র অভিযান নিয়ে। আজ আপনাদের সাথে একটা ভিডিও শেয়ার করব। এতদিন বিভিন্ন ব্লগ ও ইন্টারনেট এ পড়েছি চন্দ্র অভিযান না কি ভুয়া। যুক্তরাষ্ট্র রাশিয়ার সাথে মহাশূন্য গবেষণায় এগিয়ে যাওয়ার জন্যই নাকি এই প্রতারনার আশ্রয় নিয়েছিল। মানুষ চাঁদে গেছে কি যায়নি সে ব্যাপারে আমি কোন পক্ষই নিতে পারছি না। কিন্তু এই ভিডিও ডকুমেন্টারি দেখে খুবই বিস্মিত হলাম। মানুষ চাঁদে গেছে কি যায়নি সে ব্যাপারে আমি কোন বিতর্ক তুলতে চাই না কারণ এ ব্যাপারে অনেক বিতর্ক হয়েছে। ভিডিও টি দেখে শেয়ার করার লোভ সামলাতে পারলাম না। তাই আপনাদের কাছে আজ এই ভিডিও টি শেয়ার করলাম।


সবাই ভাল থাকবেন। আপনাদের মূল্যবান মতামত প্রদান করবেন। আল্লাহ হাফেজ। 

শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১১

এবার ‘গোয়েন্দা নথি’ নিয়ে আসছে উইকিলিকস

অর্থের অভাবে হালে খানিকটা চুপসে যাওয়া সাড়া জাগানো ওয়েবসাইট উইকিলিকস আবার আলোড়ন তুলতে আসছে। সম্প্রতি নতুন প্রকল্প নিয়ে ফেরার ঘোষণা দিয়েছেন উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। এবারে উইকিলিকসের থলে থেকে বেরোবে বেসরকারি গোয়েন্দা সংস্থার পর্যবেক্ষণ নথির তথ্য। এমনটিই জানিয়েছে দ্য ইনডিপেনডেন্ট পত্রিকা।
মূলত মার্কিন গোপন কূটনৈতিক তারবার্তা প্রকাশ করে আলোচনায় আসে উইকিলিকস। ওয়েবসাইটটির প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ জানিয়েছেন, বিভিন্ন বেসরকারি গোয়েন্দা কোম্পানি দেশে দেশে মানুষের মোবাইল ফোন ও কম্পিউটারে আড়ি পেতে যে বিপুল পরিমাণ তথ্য সম্ভার গড়ে তুলেছে, তা প্রকাশ করবে উইকিলিকস। ওই কোম্পানিগুলো এ ধরনের তথ্য বিক্রি করে থাকে বলেও জানান অ্যাসাঞ্জ। অ্যাসাঞ্জ বলেন, ‘বাস্তবতা হলো, বিশ্বজুড়ে গোয়েন্দা ঠিকাদারেরা এখন তাঁদের বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ তথ্য বিক্রি করছেন।’
নতুন এ প্রকল্পের অংশ হিসেবে গতকাল শুক্রবার তিনি ২৮৭টি তথ্য প্রকাশ করেন। চলতি সপ্তাহে বা আগামী বছর আরও তথ্য প্রকাশ করা হবে বলেও জানিয়েছেন অ্যাসাঞ্জ।
অ্যাসাঞ্জ দাবি করেন, ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর থেকে এ গোপন শিল্পে বিপুল পরিমাণ তথ্য জমা হয়েছে। প্রতিবছর যার মূল্য শত কোটি ডলার।




সুত্রঃ প্রথম আলো, ০৩ ডিসেম্বর, ২০১১

শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১১

দীপু মনি সেদিন ওভাবে কেটে পড়েছিলেন কেন!

আমীন কাদীর
ডা. দীপু মনি অনেক কিছুই হতে পারতেন। যেহেতু মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি নিয়েছেন, ডাক্তার শব্দটি নামের সঙ্গে জুড়ে নিয়েছেন। তিনি অবশ্যই দক্ষ একজন চিকিত্সক হতে পারতেন। মেডিকেলের যে কোনো ডিসিপ্লিনে বড় ডিগ্রি নিয়ে তিনি আর্তমানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করতে পারতেন।

ডা. দীপু মনি চাঁদপুরের এক সম্ভ্রান্ত রাজনৈতিক পরিবারের সম্ভাবনাময় সন্তান। ছোটবেলাতেই রাজনৈতিক চিন্তা-চেতনায় হাতেখড়ি। তার বাবা বঙ্গবন্ধুর স্নেহধন্য কর্মী। আওয়ামী লীগ এই পরিবারের রক্তে। রাজনীতি শিরায়-শোণিতে। দীপু মনি ছাত্রলীগ ও আওয়ামী লীগকে ছায়াসঙ্গী করে বড় হয়েছেন। মিছিল-বিক্ষোভ লড়াই-সংগ্রাম করেছেন ত্যাগী আওয়ামী লী

টেলিযোগাযোগ খাতে দুর্নীতি-অরাজকতা চরমে : মধুখানেওয়ালাদের পাকড়াও করতে হবে

আওয়ামী লীগ সরকারের বদৌলতে দেশের টেলিযোগাযোগ খাতে চরম নৈরাজ্যের সৃষ্টি হয়েছে। ব্যাপক ঘুষ-দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনার পাশাপাশি খোদ ক্ষমতাসীনদের সংশ্লিষ্টতার কারণে হাতছাড়া হয়ে যাচ্ছে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয়। প্রতিদিন লোপাট হচ্ছে শত শত কোটি টাকা। দৈনিক আমার দেশ-এর এক অনুসন্ধানী রিপোর্টে জানা গেছে, খাতটিতে এখন দুর্নীতিবাজ চক্রের রাজত্ব চলছে। মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী ও সরকারি কর্মকর্তারা তো বটেই, এই চক্রে এমন আরও অনেকেই জড়িত রয়েছেন—নাম ধরে যাদের সম্পর্কে বলাটা বিপজ্জনক। তারা সবাই মিলে টেলিযোগাযোগ খাতকে ‘মধুর চাক’ বানিয়ে ফেলেছেন। সরকার কিংবা ট্যাক্সদাতা জনগণ তাই বলে ওই চাকের মধু খাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে না। সবটুকু মধু শুধু চক্রের লোকজনই চুষে চুষে খাচ্ছে। এরা কাজকারবারও চালাচ্ছে ডিজিটাল পন্থায় আধুনিক তথ্য-প্রযুক্তির অপব্যবহার করে। যেমন দেশে বসেই বিদেশি কোম্পানি সেজে চুটিয়ে ভিওআইপির ব্যবসা করছে তারা। তাদের মাধ্যমেই বিদেশ থেকে আসছে প্রায় ৪৫ শতাংশ কল। দেশ থেকেও কল যাচ্ছে একইভাবে। ফলে দুর্নীতিবাজদের পকেট স্ফীত হলেও দেশ ও সরকার হারাচ্ছে

বৃহস্পতিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১১

ফ্রান্সে মুক্তি পেল সু চিকে নিয়ে নির্মিত ছবি ‘দ্য লেডি’

দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার সংগ্রামে নেমে ব্যক্তিগত জীবনে চড়া মূল্য দিতে হয়েছে মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চিকে। ক্যান্সারে আক্রান্ত স্বামী মাইকেল অ্যারিসের শেষ দিনগুলোতে তাঁর কাছে থাকতে পারেননি তিনি। দিনের পর দিন তাঁর মাতৃস্নেহ থেকে বঞ্চিত হয়েছে দুই ছেলে। 

সু চির জীবনের এসব ঘটনা নিয়ে তৈরি হয়েছে দুই ঘণ্টার চলচ্চিত্র দ্য লেডি। গতকাল বুধবার খ্যাতিমান পরিচালক লুক বেসন পরিচালিত ছবিটি ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে মুক্তি পেয়েছে। 

সু চির জীবন কাহিনী অবলম্বনে নির্মিত ছবিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জেমস বন্ড সিরিজ খ্যাত মালয়েশীয় তারকা মিশেল ইয়ো। ছবিতে রাজনৈতিক জীবনের বাইরে তাঁর ব্যক্তিগত জীবনের ওপরই মূলত আলোকপাত করা হয়েছে। তুলে ধরা হয়েছে গণতন্ত্রের পথে তাঁর দীর্ঘ সংগ্রামে নেমে কী বঞ্চনা ও দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে তাঁকে। 

সু চির স্বামী মাইকেল অ্যারিস ১৯৯৯ সালে যুক্তরাজ্যে মারা যান। মিয়ানমারের ত ৎ কালীন সামরিক জান্তা অনুমতি না দেওয়ায় স্ত্রীর কাছে যেতে পারেননি তিনি। এদিকে সু চি স্বামীর কাছে যাননি দেশে ফেরার পথ বন্ধ হওয়ার ভয়ে। এ ক্ষেত্রে তিনি ব্যক্তিগত জীবনের আবেগ-অনুভূতি প্রশ্রয় দেননি। দেশের হাজার হাজার গণতন্ত্রকামী মানুষকে দেওয়া অঙ্গীকারকেই বড় করে দেখেছেন। তাঁর এই ত্যাগের মহিমাই তুলে ধরা হয়েছে চলচ্চিত্রে। 

এ ব্যাপারে পরিচালক লুক বেসন বলেন, ‘সু চিকে এই মূল্য দিতে হয়েছে। তাঁর ওপর অগাধ বিশ্বাস রেখে হাজার হাজার মানুষ নির্দ্বিধায় জীবন দিয়েছে।’

মিশেল ইয়ো বলেন, ‘স্বামী ও নিজের (সু চির) ভালোবাসা মিলে সু চির ভেতর প্রচণ্ড এক শক্তি তৈরি করেছিল।’ 

পরিচালক বেসনকে সু চি বলেছেন, ছবিটি দেখার জন্য এখনো তিনি মানসিকভাবে প্রস্তুত নন। যখন তিনি ছবিটি দেখার জন্য যথেষ্ট সাহস সঞ্চয় করবেন, তখনই কেবল ছবিটি দেখবেন।

সুত্রঃ প্রথম আলো, ০১ ডিসেম্বর, ২০১১

অফিসে সাপ ছেড়ে প্রতিবাদ!

সাপ রাখার জন্য জমির আবেদন করেছিলেন হাক্কুল। অনেক চেষ্টা-তদবির করেও সংশ্লিষ্ট সরকারি অফিস থেকে কোনো সাড়া পাননি। এতে ভারি মেজাজ চটেছে তাঁর। ওই সরকারি কর অফিসে ছেড়ে দিয়েছেন কয়েক ডজন সাপ।

গত মঙ্গলবার ভারতের উত্তর প্রদেশের হরিয়ানায় এ ঘটনা ঘটে। হরিয়ানা শহর থেকে ভূমি রাজস্ব প্রশাসনের প্রধান সুভাষ মনি ত্রিপাঠী জানান, সাপুড়ে হাক্কুল এক টুকরো জমি চেয়ে তাঁদের অফিসে আবেদন করেছিলেন। তবে সাপ রাখার জন্য জমি বরাদ্দ দেওয়ার কোনো বিধান নেই।

ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘হাক্কুল আমাদের কাছ থেকে কোনো লিখিত চিঠির অপেক্ষা না করে ভীতি সৃষ্টির জন্য মঙ্গলবার গোটা অফিসে সাপ ছেড়ে দেন। এ সময় সাপের ফোঁস ফোঁস শব্দে কর্মীদের কেউ কেউ তড়িঘড়ি চেয়ার-টেবিলের ওপরে উঠে পড়েন। তাঁরা সাপগুলো সরিয়ে নেওয়ার জন্য চিত্কার করতে থাকেন। এ সময় অফিস ভবনের বাইরে লোকজনের ভিড় জমে যায়। ওই ঘটনায় অবশ্য কেউ হতাহত হয়নি।’

পরে হাক্কুল সাংবাদিকদের জানান, ‘দুই বছর আগে সাপ রাখার জন্য আমাকে এক টুকরো জমি দেওয়ার অঙ্গীকার করেছিলেন একজন জেলা ম্যাজিস্ট্রেট।’ তিনি বলেন, ‘আমি সাপ সংরক্ষণ করতে সরকারের সহযোগিতা চেয়েছি। দীর্ঘ সময় আমি ধৈর্যের সঙ্গে অপেক্ষা করেছি। জমি না পেয়ে অফিসে সাপ ছেড়ে দেওয়া ছাড়া আমার কোনো বিকল্প ছিল না।’ ওয়েবসাইট